১৮/০৬/২০২৪ ইং
Home / অন্যান্য / মেয়ে জামাইকে মারতে লাখ টাকায় খুনি ভাড়া করলেন শাশুড়ি!

মেয়ে জামাইকে মারতে লাখ টাকায় খুনি ভাড়া করলেন শাশুড়ি!

চট্টগ্রাম ☰ বৃহস্পতিবার ১৬ মার্চ ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

লোহাগাড়া প্রতিনিধি | লোহাগাড়ার পুটিবিলায় প্রবাসী মনছুর আলী (২৭) হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত ছাবের আহমদ (৫০) নামে এক ভাড়াটে খুনিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ছাবের আহমদ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব পহরচান্দা এলাকার ইবনে আমিনের পুত্র।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় নিহত প্রবাসীর শাশুড়ি ছায়েরা খাতুন, শ্যালিকা রুমন্নান আক্তার ও ভাড়াটিয়া খুনি ছাবের আহমদকে গতকাল বুধবার আদালতে সোপর্দ করা হয়। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এছাড়া তদন্তে নিহত প্রবাসীর স্ত্রী রিনা আক্তার হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার সত্যতা পাওয়া যায়নি। তাই তাকে থানা থেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পরবর্তী তদন্তে হত্যাকাণ্ডে তার জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে মামলায় অন্তর্ভূক্তিসহ পুনরায় গ্রেফতার করা হবে।

নিহতের ভাই খোরশেদ আলম জানান, গতকাল ময়নাতদন্ত শেষে প্রবাসী মনছুর আলীর মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। একইদিন সন্ধ্যায় নামাজে জানাজা শেষে তাকে সামাজিক করবস্থানে দাফন করা হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক তার ভাইয়ের হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তিনি।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা লোহাগাড়া থানার এসআই শরিফুল ইসলাম জানান, জিজ্ঞাসাবাদে নিহত প্রবাসীর শাশুড়ি ছায়েরা খাতুনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ভাড়াটিয়া খুনি ছাবের আহমদকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেয়া তথ্য মতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা খাল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। মেয়ের স্বামীকে হত্যা করতে ১ লাখ টাকার বিনিময়ে ৪ ভাড়াটিয়া খুনি ভাড়া করেন শাশুড়ি ছায়েরা খাতুন। গত ১ মার্চ শ্বশুর বাড়ি যান প্রবাসী মনছুর আলী। রাতে ওৎপেতে থাকা ভাড়াটে খুনিরা শ্বশুর বাড়ির ভেতর দা দিয়ে কুপিয়ে তাকে হত্যা করে। মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর শ্বশুর বাড়ি থেকে আনুমানিক ৩০০ গজ দূরে এক ঝিরিতে ওই প্রবাসীকে মাটিচাপা দেয় খুনিরা।

এসআই শরিফুল ইসলাম আরও জানান, পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সাথে নিহত প্রবাসী মনছুর আলীর বিরোধ চলছিল। উক্ত বিরোধের জের ধরে শাশুড়ির ভাড়া করা খুনিদের হাতে খুন হন মেয়ের স্বামী। হত্যকাণ্ডে সরাসরি জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। উক্ত ঘটনায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার পুটিবিলা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের পহরচান্দা ছোট ধলিবিলা হাসনা ভিটার পাহাড়ি টিলার এক ঝিরি থেকে প্রবাসী মনছুর আলীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি একই ওয়ার্ডের পহরচান্দা সেকান্দার পাড়া এলাকার ফরিদ আহমদের পুত্র ও ২ সন্তানের জনক। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি তিনি দুবাই থেকে দেশে আসেন। পরদিন তিনি নিখোঁজ হন।

বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন- talashtv24

Print Friendly, PDF & Email

About newsdesk

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শওকত ইরফান রিয়াদের উদ্যোগে পবিত্র খতমে কুরআন ও দো’য়া অনুষ্ঠিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *