১৭/০৬/২০২৪ ইং
Home / অন্যান্য / সাতকানিয়া পৌরসভার উন্নয়নে কমিশনার সোহেলের সফলতা

সাতকানিয়া পৌরসভার উন্নয়নে কমিশনার সোহেলের সফলতা

প্রকাশিত: বুধবার, ১৬ই ফেব্রুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

নিউজ ডেস্ক : তালাশটিভি টোয়েন্টিফোর ডটকম

মোঃ হারুনুর রশীদ (সাতকানিয়া) :
চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভা মহামারী করোনা চলাকালে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়েছেন সাবেক সফল ব্যবসায়ী ও পৌরসভা ছমদর পাড়ার কমিশনার দায়িত্ব নেওয়ার এক বছরের মধ্যে এলাকার উন্নয়ন ও ন্যায় বিচার করেছেন এবি.এস সোহেল কমিশনার।

এবি.এস সোহেল তালাশটিভি টোয়েন্টিফোরকে বলেন, এলাকাবাসীর পবিত্র আমানত রায় ও ভোটের মাধ্যমে সেবার দাস হিসাবে আমাকে সাতকানিয়া পৌরসভার প্রতিনিধি হিসেবে পাঠিয়েছিলেন, আমার কর্ম দিবসের এক বছর পূরণ হল আজ। আমি দায়িত্ব গ্রহণের পর টানা ৪টি মাস করোনা মহামারীর কারণে সারা বাংলাদেশের ন্যায় সাতকানিয়ার অবস্থা অবকাঠামোর উন্নয়ন থেকে শুরু করে প্রত্যেকটি সেক্টরের উন্নয়নের কর্মকাণ্ড স্তব্ধ ছিল।

মাননীয় পৌর পিতা মেয়র মহোদয়ের সমন্বয়ে প্রতিটি মাসিক মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করে আমি আমার এলাকার উন্নয়ন বাস্তবায়ন এবং প্রতিটি বরাদ্দ সকল ওয়ার্ডের ন্যায়, আমার প্রাণের ওয়ার্ডে সরকারি এবং পৌর সভার প্রতিটি উন্নয়ন কর্মকান্ড আপনাদের দ্বার প্রান্তে পৌঁছানোর লক্ষ্যে দিন-রাত কাজ করেছি। মহান আল্লাহ তা’য়ালাকে হাজির-নাজির করে অবিরাম কাজ করার চেষ্টা করে চলেছি। যার দৃষ্টান্ত আপনারা স্বয়ং নিজে।

আমি আমার প্রাণের ওয়ার্ডের বর্তমান সরকারের প্রচলিত ভাতার মধ্যে ১ লক্ষ ৩৭ জনকে বিনা খরচে বয়স্ক ভাতা গ্রহনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। যা ইতিমধ্যে ভাতা প্রাপ্তরা ভাতা ভোগ করছেন। যাতে ভাতা প্রাপ্তরা ভোগ করতে এক পয়সা কোথাও বিনিয়োগ করতে হয় নি। সকল ওয়ার্ডের ন্যায় আমার প্রাণের ওয়ার্ডে বিনামুল্যে ১০ জনকে প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদান করেছি, সরকারের মুরব্বিদেরকে নিয়ে দেওয়া প্রতিটি ত্রাণ প্রতি গলির সমন্বয়ে সকলের কাছে পৌঁছানোর জন্য মুরব্বিদেরকে নিয়ে বিতরণ করেছি।

এইচ.এস.সি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল জানতে ক্লিক করুন www.educationboardresults.gov.bd
অথবা www.bise-ctg.gov.bd

গত ১ বছরে আমি ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য আপনাদের দো’য়ায় ৩১৭টি বিচার কার্যক্রম সম্পন্ন করেছি। আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের দো’য়ায় এ পর্যন্ত একটি বিচার থানায় ও পৌর সভায় আমার ওয়ার্ড হতে যায় নি। ২নং গলির নালার পাশে আর.সি.সি দ্বারা ডালাই শেষ করেছি। দক্ষিণ ছমদর পাড়া স্কুলের পাশ হতে ০ হতে ৪নং গলির নিস্কাশনের জন্য এলাকাবাসীকে নিয়ে জমানো পাইপ দ্বারা পানি নিষ্কাশন করেছি।

উত্তর ছমদর পাড়া সরলিয়া পাড়া রিটার্নিং ওয়ালের কাজ এবং মৌলবীপাড়া পুকুরের পাড় আর.সি.সি দ্বারা কাজ চলমান আছে। ১২নং গলি পর্যন্ত আর.সি.সি এর ৬৪ লক্ষ টাকার টেন্ডার শেষ। ৫-৬ দিনের মধ্যে কাজ শুরু হবে ইনশাআল্লাহ। দক্ষিণ ছমদর পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় তলা বিশিষ্ট ১ কোটি ২৮ লক্ষ টাকার ভবন ও ১৫ লক্ষ টাকার ওয়াস ব্লক কাজ শেষের পথে এবং ১০নং গলি হতে ১৫নং গলি পর্যন্ত নালার আউট ফুল টেন্ডার শেষ। যা দ্রুত গতিতে কাজ শুরু হবে ইনশাআল্লাহ।

১১ ও ১২নং গলি উম্মত আলি শাহ মসজিদের পূর্বাংশের ৫০০ ফুট আর.সি.সি রাস্তা ও নালার টেন্ডার শেষ করেছি এবং দ্রুত কাজ শুরু হবে ইনশাআল্লাহ। ১ ও ১৩ নং গলির নালা ও পৌরসভার খুটিসহ বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন টেন্ডার শেষ করেছি। ১২নং সরলিয়াপাড়ার নালা ও আর.সি.সি রাস্তাসহ টেন্ডার শেষ করেছি। ৬নং গলির পুকুরের রিটার্নিং ওয়ালও অবশিষ্ট রাস্তার টেন্ডার শেষ করেছি। ৯নং গলির পুকুরের রিটার্নিং ওয়াল ও অবশিষ্ট রাস্তা টেন্ডার শেষ করেছি। ১০ ও ১১নং গলির পুকুরের রিটার্নিং ওয়ার্ল টেন্ডার শেষ করেছি। উম্মত আলি শাহ মসজিদের রিটার্নিং ওয়াল ও ওয়াস বল্ক টেন্ডার শেষ করেছি। ১নং গলির ওয়াসবল্ক শেষ এবং ১নং হইতে ৩নং গলিতে পানির ব্যবস্থা করেছি।

আলহামদুলিল্লাহ, কালুর বাপের হাটকে আধুনিকায়ন করার জন্য মাননীয় মেয়র মহোদয়কে নিয়ে পরিকল্পনা গ্রহন করেছি। মাদক ছেড়ে মাঠে যাবার জন্য ইতি মধ্যে মাননীয় মেয়র মহোদয়কে নিয়ে মাট সংরক্ষণ ও গ্যালারি নির্মান, ড্রেন নির্মান, মাঠি ভরাটসহ দৃষ্টি নন্দন করার লক্ষ্যে ব্যবস্থা চলমান। আমার প্রাণের ওয়ার্ডের মানুষের সুবিধার্তে মাননীয় এমপি মহোদয় ও মাননীয় মেয়র মহোদয় সহযোগিতায় স্মার্ট কার্ড আমার ওয়ার্ডে বিতরন করেছি।

করোনা মহামারী প্রতিরোধে গত ৫ মাসে মাননীয় সংসদ ও মাননীয় মেয়র মহোদয়ের অভুতপুর্ব অবদানে ১৭০০ জনকে স্কুলে টিকা প্রদান করেছি। বিগত ১২টি মাসে একদিন ও ১ ঘন্টার জন্যেও আমার ব্যক্তিগত কাজের জন্য আমার ওয়ার্ডের বাইরে যায় নি। সব সময় দারোয়ানের মত পাহারায় ছিলাম।

আল্লাহ রাব্বুল আলামীনকে হাজির নাজির করে পরিশেষে একটি কথায় বলতে পারি, আমি কোনো বিচার বানিজ্য করিনি, আত্ম-প্রবন্চনাকে উর্ধ্বে রেখেছি, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ও টেন্ডার প্রক্রিয়া এবং উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড কাগজাদি ছবিসহ উপস্থাপন করছি স্থানীয় অত্র ওয়ার্ড়ের এলাকাবাসীর নিকট।

বিগত এক বছরে, আমি নিজেকে কাউন্সিলর হিসেবে দেখিনি। সব সময় নিজেকে পাহারাদার হিসাবে বিলিয়ে দিয়েছি। ভবিষ্যতেও ইনশাল্লাহ আপনাদের পাহারাদার হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারি মতে দো’য়া ভিক্ষা চাচ্ছি। পরিশেষে আল্লাহ তা’য়ালার কাছে আপনাদের সকলের সুস্বাস্থ্য উন্নতি কামনা করে সকলের দো’য়া ও সহযোগিতা কামনা করেন সফল এই কমিশনার এবিএস সোহেল।

বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে দেশ-বিদেশের সব খবর সবার আগে জানতে বা আপনার পাঠানো বিজ্ঞাপন দেখতে ভিজিট করুন- talashtv24.com

Print Friendly, PDF & Email

About newsdesk

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শওকত ইরফান রিয়াদের উদ্যোগে পবিত্র খতমে কুরআন ও দো’য়া অনুষ্ঠিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *