১৮/০৬/২০২৪ ইং
Home / জাতীয় / শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ৩০শে জুন পর্যন্ত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ৩০শে জুন পর্যন্ত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ৩০শে জুন পর্যন্ত

প্রকাশিত: শনিবার, ১২ই জুন ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৩০শে জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। একইসঙ্গে ৩০শে জুন পর্যন্ত বেড়েছে ইবতেদায়ি ও কওমি মাদ্রাসাগুলোর ছুটিও। শনিবার (১২ই জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম.এ খায়ের এ তথ্য জানিয়েছেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে করোনা পরিস্থিতি আরো অবনতি হওয়ায় এবং দেশের কোন কোন অঞ্চলে আংশিকভাবে কঠোর লকডাউন কার্যকর থাকায় শিক্ষার্থী-শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তার বিবেচনায় এবং কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে পরামর্শক্রমে দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং এবতেদায়ি ও কওমি মাদ্রাসাগুলোর চলমান ছুটি আগামী ৩০শে জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতির উন্নতি সাপেক্ষে ১৩ই জুন দেশের সব প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার কথা জানিয়েছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ২৬শে মে এক ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আগামী ১২ই জুন পর্যন্ত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো ঘোষণা দেন।

ওই দিন শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ১৩ই জুন থেকে প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকের সব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। পর্যায়ক্রমে কারো ছয় দিন হবে কারো একদিন হবে। যারা ২০২১ সালে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা দেবে তারা সপ্তাহে ছয় দিন এবং অন্য ক্লাসগুলোর একদিন ক্লাস হবে এবং পর্যায়ক্রমে এটা বাড়ানো হবে। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নেবো ইউজিসি এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে খুব শিগগিরই আলোচনা করে তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করে কত দ্রুত খুলে দিতে পারি, আমরা সেই চেষ্টা করবো।

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আমরা যেন দ্রুত খুলে দিতে পারি সেজন্য আমাদের প্রত্যেকের দায়িত্ব রয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা যেন সংক্রমণের হার না বাড়ে। সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের মধ্যে এলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া যাবে বলে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন। আমি অনুরোধ করবো সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি যাতে আমাদের ছেলে-মেয়েদের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিতে পারি।

গত বছরের ৮ই মার্চ দেশে প্রথম করোনারোগী শনাক্তের পর ১৮ই মার্চ থেকে সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অনলাইন রেডিও এবং সংসদ টিভিতে পাঠদানের কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সবশেষ আগামী ২৯শে মে পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা আছে।

Print Friendly, PDF & Email

About newsdesk

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শওকত ইরফান রিয়াদের উদ্যোগে পবিত্র খতমে কুরআন ও দো’য়া অনুষ্ঠিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *