১৮/০৬/২০২৪ ইং
Home / সারাবাংলা / চট্রগ্রাম / ‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ক্লাব’র নবগঠিত কমিটির আলোচনা সভা সম্পন্ন

‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ক্লাব’র নবগঠিত কমিটির আলোচনা সভা সম্পন্ন

‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ক্লাব’র নবগঠিত কমিটির আলোচনা সভা সম্পন্ন

প্রকাশিত: বুধবার, ৯ই জুন ২০২১ ইংরেজি

মোঃ হাসান মিয়া (প্রতিনিধি) :

‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ক্লাব’র নবগঠিত কমিটির ১ম আলোচনা সভা সম্পন্ন হয়েছে। গত শনিবার (৫ই জুন) বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম নগরীর চাঁন্দগাও থানা সংলগ্ন এক অভিজাত হোটেলে উক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি এম.শামীম চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: জিয়াউল হকের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি এম.নূরুল কবির। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ‘বর্তমানে সাংবাদিকরা নানাভাবে নির্যাতিত ও অবহেলিত। এই নির্যাতন নিপীড়ন থেকে বাঁচতে সংগঠিত হওয়ার বিকল্প নেই। সংগঠনের অগ্রগতির জন্য সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত সবাইকে আন্তরিক হতে হবে, একে অপরের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে হবে এবং কেউ বিপদে পড়লে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করতে হবে। নবগঠিত কমিটির সকল সাংবাদিকদের যেকোনো প্রয়োজনে (সুখে-দুঃখে) তিনি নিজে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন।’

অতঃপর চট্টগ্রামে কর্মরত পেশাদার এবং অবহেলিত সকল সাংবাদিকদেরকে নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় ‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ক্লাব’র সাথে যুক্ত হওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেন বলেন, ‘সাংবাদিকতা হলো সর্বোচ্চ ঝুঁকির পেশা। অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করতে গিয়ে সাংবাদিকদেরকে অনেক সময় শারীরিক- মানসিকভাবে লাঞ্চিত হতে হয়। এই ধরনের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের সময় নিজেকে নিরাপদ রেখে সুকৌশলী হতে বলেন। সাংবাদিকদেরকে নির্যাতন-নিপীড়ন থেকে রক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন অধিকার আদায়েও এই সংগঠন নিরলসভাবে কাজ করে যাবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। কোনো সদস্য ঝুঁকিপূর্ণ তথ্য সংগ্রহ করতে যাওয়ার সময় সংগঠনের সভাপতি/সম্পাদককে অবগত করার অনুরোধ জানান তিনি।’

সভাপতির বক্তব্যে এম. শামীম চৌধুরী বলেন, ‘যেদিকে যাই শুধু সাংবাদিক নির্যাতনের কথা শুনি। সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে না তাই প্রতিনিয়ত নির্যাতিত-নিপীড়িত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন যদি আমরা সংগঠিত হই, একজনের বিপদে ১০ জন হাজির হই তাহলে নির্যাতনকারীরা নিজেরাও পালানোর পথ খুঁজে পাবে না। এসময় তিনি সংগঠনের সদস্যদেরকে দূর্নীতিমুক্ত থাকার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ব্যক্তিগত অপরাধ কর্মকান্ডে বিপদগ্রস্থ হয়ে সেখানে সহযোগিতা চেয়ে সংগঠনকে কলংকিত করা যাবে না। পেশাগত দায়িত্ব পালনে যেকোনো সমস্যা হলে সংগঠনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া হবে।’

আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি এইচ.এম শাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোফাচ্ছিরুল হক বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক এম. সাদ্দাম হোছাইন সাজ্জাদ, আইন বিষয়ক সম্পাদক মোঃ রেজাউল করিম বাপ্পি, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আওলাদ হোসেন, অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহাদাত হোছাইন, ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ মোসলেম উদ্দিন ইমন, নির্বাহী সদস্য কমল বড়ুয়া বিজয় এবং মোঃ রোকন উদ্দীন রোকন।

উল্লেখ্য, সাংবাদিকের অধিকার আদায়ে সোচ্চার এই স্লোগানকে ধারণ করে ২০১৯ সালের ১০ই এপ্রিল আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা করে ‘চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ক্লাব’। প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হলে ১০ই মে বর্তমান নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।

সর্বোপরি, বক্তারা সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সংগঠনকে এগিয়ে নেওয়ার অনুরোধ জানান। একইসাথে যে কোনো সদস্যের বিপদে-আপদে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ার পাশাপাশি চট্টগ্রামে কর্মরত অবহেলিত এবং পেশাদার সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারেরও ঘোষণা দেন।

Print Friendly, PDF & Email

About newsdesk

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শওকত ইরফান রিয়াদের উদ্যোগে পবিত্র খতমে কুরআন ও দো’য়া অনুষ্ঠিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *