১৬/০৬/২০২৪ ইং
Home / শিক্ষা / অন্যান্য / চট্টগ্রামে ইছামনি নামের এক প্রতারক মহিলার সন্ধান

চট্টগ্রামে ইছামনি নামের এক প্রতারক মহিলার সন্ধান

চট্টগ্রামে ইছামনি নামের এক প্রতারক মহিলার সন্ধান

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
চট্টগ্রামে আনোয়ারার ইছামনি নামের এক প্রতারক মহিলার সন্ধান পাওয়া যায়। সে আনোয়ারা থানার সত্তার হাট, কামাল সওদাগরের বাড়ির মৃত মোঃ শফিকের মেয়ে। হাটহাজারী থানাস্থ নুর মিয়ার বাড়ির আনোয়ার মিয়ার ছেলে মোঃ জাহেদের সাথে ইসামনির বিবাহ হয়।

খবর নিয়ে জানা যায়, এই মহিলা প্রতারক তার স্বামীর সাথে প্রতারণা করে বর্তমানে চট্টগ্রাম নগরীর হাটহাজারী থানাস্থ এলাকায় বিভিন্ন কৌশলে সহজ-সরল মানুষের সাথে প্রতারণা করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এ মহিলা বিগত ০১/১২/২০২১ ইং তারিখে মুরাদপুরস্থ জিএম আইটি ইনস্টিটিউট অফিসের কর্মকর্তা সুজন নামের এক যুবকের কাছে গ্রাহক হিসেবে আসে।

পরবর্তীতে তার অভাবের কথা সুজনকে খুলে বললে তিনি ইছামনিকে অফিসে কাজের সুযোগ করে দেয়। এক পর্যায়ে মাঝে মধ্যে উক্ত মহিলা সুজনের কাছ থেকে টাকা ধার চাইলে তিনি তাকে টাকা ধার দেয়।

এক সময় ধারকৃত টাকাগুলো ফেরত চাইলে সুজনকে বিবাহ করতে চাপ প্রয়োগ করে এবং ইছামনি বলে যে, তুমি আমাকে টাকা ধার দিয়েছো আমাকে বিয়ে করবে বলে, যখন সুজনকে বিয়ে করার জন্য বেশি চাপ প্রয়োগ করতে থাকে তখন সুজন বলে, আমি বাসার একমাত্র উপার্জনকারী ব্যক্তি এখন আমি বিয়ে করতে পারব না বলে প্রত্যাখ্যান করে।

এক পর্যায়ে সুজনকে এই বলে হুমকি দেয় যে, তুমি আমাকে বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করে তোমাকে দায়ী করবো। পরবর্তীতে বাংলাদেশের প্রচলিত আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বিগত ০৪/০৩/২০২১ইং তারিখে চট্টগ্রাম মহামান্য আদালতের দ্বারস্থ হয়ে উক্ত মহিলার বিরুদ্ধে একটি জিডি করি। যার নং- ৮৬/২০২১

ইছামনিকে বারবার সতর্ক করার পরও উক্ত মহিলা আমার অফিসে এসে আমার সহপাঠীদের নিকট আমার বিবাহিত স্ত্রী বলে গুজব ছড়িয়ে আমার সম্মানহানি করে এবং আমার অফিসের বিভিন্ন মূল্যবান আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। তারপর ইছামনি রাতে আমাকে মোবাইলে এই বলে হুমকি দেয় যে, তুমি আমাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করে আমিও মরবো তোমাকেও দায়ী করে দুনিয়া থেকে চলে যাব।

Print Friendly, PDF & Email

About newsdesk

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শওকত ইরফান রিয়াদের উদ্যোগে পবিত্র খতমে কুরআন ও দো’য়া অনুষ্ঠিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *