২৫/০৬/২০২৪ ইং
Home / শিক্ষা / অন্যান্য / শাকিবের মন্তব্যে আনন্দিত ও সম্মানিত রুনা লায়লা

শাকিবের মন্তব্যে আনন্দিত ও সম্মানিত রুনা লায়লা

বিনোদন প্রতিবেদক :

উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী রুনা লায়লার জন্মদিনে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী শাকিব খান তাঁর ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দেন। ২ মাস পর তা নজরে এসেছে রুনা লায়লার। শাকিবের লেখা পোস্টটি নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করে ধন্যবাদ জানাতেও ভোলেননি রুনা লায়লা। পোস্টের সূত্র ধরে কথা হয় রুনা লায়লার সঙ্গে। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ‘শাকিব খান এত সুন্দর করে কথাগুলো লিখেছে, সত্যিই এমনটা প্রত্যাশা করিনি। শাকিবের এমন করে লেখায় আমি ভীষণ সম্মানিতবোধ করেছি।’

রুনা লায়লার জন্মদিনে শাকিব তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেছিলেন, ‘গানে গানে উপমহাদেশের মানুষের হৃদয় জয় করে নেওয়া শিল্পীর নাম রুনা লায়লা। শুধু বাংলা ভাষায় নয়, বিশ্বের ১৮ ভাষার গানে আপনার মোহনীয় কণ্ঠের জাদুতে আজও মুগ্ধ করে যাচ্ছেন। আপনি অসম্ভব এক অনুপ্রেরণার নাম, পাশাপাশি বিস্ময়ের! সত্যি আমরা খুবই ভাগ্যবান যে আমাদের সংগীতে একজন রুনা লায়লা আছেন। পুরো বাংলা সংগীতের অহংকার আপনি। গর্ব করে আমরা বলতে পারি আমাদের ‘দ্য রুনা লায়লা’ আছেন। আপনার গানের একজন নিয়মিত শ্রোতা-ভক্ত আমি। আপনার সঙ্গে যতবারই দেখা হয়েছে, ততবারই আপনি আমাকে পরম স্নেহ দিয়েছেন। আপনার ব্যক্তিত্ব আমাকে মুগ্ধ করে। আপনাকে নিয়ে বলতে বললে হয়তো শেষ করা যাবে না।’

এমন পোস্টের পরিপ্রেক্ষিতে রুনা লায়লা গতকাল রোববার সাংবাদিককে বলেন, ‘আমার জন্মদিনে শাকিবের দেওয়া পোস্টটি তখন খেয়াল করিনি। হঠাৎ গতকাল শনিবার চোখে পড়ল। আমি প্রত্যাশা করিনি, শাকিব এত সুন্দর করে আমায় নিয়ে লিখবে। ব্যাপারটা আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। এতটা সম্মান, ভালোবাসা মিশ্রিত লেখায়—আমি সত্যিই অনেক খুশি ও সম্মানিতবোধ করছি।’

রুনা লায়লা ও আলমগীর ঢালিউডে দুই দশকের বেশি সময় ধরে অভিনয় করছেন। চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজকদের মতে, দেশের চলচ্চিত্রের একমাত্র আশার বাতিঘর এখনো শাকিব খানই। তাঁর ছবিগুলোর প্রতি দর্শকের যেমন আগ্রহ থাকে, তেমনি প্রযোজকেরা বিনিয়োগ ফেরত পাওয়ার ব্যাপারে নিশ্চিত থাকতে পারেন। বাংলাদেশের জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে শাকিব খানে বিনিয়োগ করেছে ভারতের বাংলা ছবির নামকরা প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানও। ভারতেও তাঁর মুক্তি পাওয়া ছবি ব্যবসায়িকভাবে সফলতা পাওয়ার পাশাপাশি দর্শকনন্দিত হয়েছে। শাকিবের অভিনয় মুগ্ধ করেছে উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী রুনা লায়লাকে। তিনি বলেন, ‘শাকিবের অভিনয় আমার ভালো লাগে। ব্যক্তিগতভাবেও শাকিবকে আমি খুবই পছন্দ করি। সে তার মতো করেই কাজ করে। আমার দোয়া রইল, সৃষ্টিকর্তা শাকিবকে আরও অনেক অনেক বেশি সাফল্যের দেখা দিক।’

শাকিব খান অভিনীত ‘সত্তা’ ছবিটি দেখেছেন বলে জানালেন রুনা লায়লা। এই ছবিটি তাঁর স্বামী দেশের বরেণ্য অভিনয়শিল্পী আলমগীরসহ একত্রে দেখেছেন। সেই স্মৃতি মনে করে রুনা লায়লা বলেন, ‘এই ছবিতে শাকিবের অভিনয় অদ্ভুত লেগেছে। আমি ও আলমগীর সাহেব দুজনে একসঙ্গে ছবিটি দেখেছি। অন্য রকম একটা চরিত্র ছিল। আর শাকিবও খুব চমৎকারভাবে তাঁর চরিত্রের সদ্ব্যবহার করতে পেরেছে।’

শাকিব খানের ভারতে অভিনয়ের ব্যাপারটিও রুনা লায়লাকে গর্বিত করে। দেশের যেকোনো সাফল্য তাঁকে বরাবরই আনন্দিত করে। রুনা বলেন, ‘গান, নাচ, অভিনয়ের যে শিল্পীই হোক—বাইরের দেশে যখন আমাদের দেশের মুখ উজ্জ্বল করে, তা আমার মধ্যে অনেক ভালো লাগার অনুভূতি এনে দেয়। আমাদের দেশে তো শাকিবের সম্মান ও জনপ্রিয়তা অনেক আছে। এরপর বাইরের দেশে গিয়েও সম্মানিত হচ্ছে, প্রশংসিত হচ্ছে, বাইরের দেশের মানুষ যখন তাকে নিয়ে কথা বলছে—এসবে আমি খুব গর্ববোধ করি। নিজের দেশে সম্মান, আদর, পাওয়াটা একরকম। আর বাইরের দেশের ব্যাপারটা আরও বেশি অন্য রকম। এটা আমাকে সত্যিই খুবই গর্ব করে।’

সব শেষে রুনা লায়লা একরকম পরামর্শের সুরে বলেন, ‘আমি সব সময় মনে করি, শাকিব খুব ভালো একজন অভিনয়শিল্পী। ওকে যদি আরও ভালো পরিচালক আর ভিন্নধর্মী চরিত্রে অভিনয় করতে দেওয়া যায়—সে আরও অনেক বেশি ভালো করবে। আমি তার ট্যালেন্ট সম্পর্কে খুব ভালো করেই জানি। পুরোপুরি ট্যালেন্টটা বের করে আনতে হবে। গুণী সব পরিচালকের উচিত, তাকে নিয়ে নানা ধরনের চরিত্র ও ভালো সব গল্প নিয়ে ভাবা।’

Print Friendly, PDF & Email

About newsdesk

Check Also

বঙ্গবন্ধুর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শওকত ইরফান রিয়াদের উদ্যোগে পবিত্র খতমে কুরআন ও দো’য়া অনুষ্ঠিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *